ব্রেস্ট লাম্প বা স্তনে মাংসপিন্ড নিয়ে আপনি যথেষ্ট সচেতন তো? - মায়া

ব্রেস্ট লাম্প বা স্তনে মাংসপিন্ড নিয়ে আপনি যথেষ্ট সচেতন তো?

বেশিরভাগ ব্রেস্ট লাম্প বা স্তনের মাংসপিণ্ড ক্যান্সারবিহীন। আপনি হয়ত বিস্মিত হতে পারেন স্তনে একটি মাংসপিন্ড খুঁজে পেয়ে, কিন্তু এটা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ণ যে এটা আপনার স্বাস্থ্যের উপর দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব নাও ফেলতে পারে।

যাইহোক, ব্রেস্ট লাম্প ক্যান্সারের লক্ষণ হতে পারে। আপনার স্তনে যে কোন গোটা বা ফোলা আবিষ্কার করলে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হন।

আপনার হরমোনের পরিবর্তনের ফলে ব্রেস্ট লাম্প তৈরি হতে পারে এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে এমনিতেই তা অদৃশ্য হয়ে যায়। যে কোন বয়সে এই লাম্প দেখা দিতে পারে।

শিশুদের জন্মের সময় তাদের মায়েদের কাছ থেকে পাওয়া ইস্ট্রোজেনের কারণে স্তনের লাম্পস হতে পারে যা ইস্ট্রোজেনের সাথে শরীর ছেড়ে চলে যায়।

কিছু শিশু জন্মের সময় তাদের মায়েদের কাছ থেকে পাওয়া ইস্ট্রোজেনের কারণে স্তনের স্তূপ বিকশিত হয়। এগুলো সাধারণত পরিষ্কার হয়ে যায় যখন ইস্ট্রোজেন তাদের শরীর ছেড়ে চলে যায়। মায়ার ডাক্তারের মতে-

ব্রেস্ট লাম্প হওয়ার কারণ

আপনার স্তনে লাম্প বা গোটা হবার অনেকগুলো সম্ভাব্য কারণ আছে, যার মধ্যে রয়েছে:

  • স্তন সিস্ট, যা নরম, তরল ভর্তি গোটা
  • বুকের দুধ ভর্তি সিস্ট, যা প্রসুতি মায়ের বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় ঘটতে পারে
  • ফাইব্রোসিস্টিক স্তন, একটি অবস্থা যেখানে স্তন টিস্যুর মধ্যে গোটা গোটা অনুভূত হয় এবং সাথে মাঝে মাঝে ব্যথা অনুভূত হয়
  • ফাইব্রোএডিনোমা, যার মানে ক্যান্সারবিহীন রাবারের ন্যায় পিন্ড যা সহজেই স্তন টিস্যুর মধ্যে চলে যায় এবং খুব কমই ক্যান্সার হয়ে ওঠে
  • হামারটোমা, যা টিউমারের মত বাড়ে কিন্তু ক্ষতিকর নয়
  • ইন্ট্রাডাক্টাল প্যাপিলোমা, দুগ্ধ নালীতে একটি ছোট, ক্যান্সারবিহীন টিউমার
  • লাইপোমা, যা একটি ধীর বর্ধনশীল, ক্যান্সারবিহীন, চর্বিযুক্ত পিন্ড
  • ম্যাস্টিটিস,
  • আঘাত বা স্তনের ইনফেকশন
  • স্তন ক্যান্সার

স্বাভাবিক অবস্থায় স্তন কেমন হওয়া উচিৎ?

স্তনের টিস্যু ধারাবাহিকভাবে পরিবর্তিত হয়, আপনার স্তনের উপরের অংশ দৃঢ় এবং ভেতরের অংশকিছুটা নরম অনুভব হবে।

আপনি যদি নারী হন, তাহলে আপনার ঋতুস্রাবের সময় আপনার স্তন আরো কোমল বা কোমলতর হতে পারে। বয়স বাড়ার সাথে সাথে স্তনের টিস্যুর কম ঘন হওয়ার প্রবণতা থাকে।

নিজের স্তন এর স্বাভাবিক অবস্থাকে চিনুন। কোনধরণের অস্বাভাবিকতা চোখে পড়লে অবহেলা করবেন না।

ব্রেস্ট লাম্প কেমন হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন?

মনে রাখবেন, বেশিরভাগ স্তন লাম্প ক্যান্সারবিহীন। তথাপি নিম্নোক্ত অবস্থায় অবশ্যই ডাক্তারের পরামর্শ নিবেন-

  • নতুন কোন মাংসপিণ্ড আবিস্কার করলে
  • আপনার স্তনের কোন অংশ লক্ষণীয়ভাবে অন্য অংশের চেয়ে আলাদা হলে
  • ঋতুস্রাব ভালো হবার পরও কোন লাম্প অনুভূত হলে
  • মাংসপিন্ডের আকার পরিবর্তন হলে
  • আপনার স্তন কোন কারণ ছাড়া ক্ষত দেখা দিলে
  • বুকের চামড়া লাল হয়ে গেলে অথবা একটি কমলা খোসা মত অমসৃণ হয়ে ওঠে
  • আপনার স্তনবৃন্ত স্বাভাবিকের তুলনায় ভিতরে ঢুকে গেলে
  • আপনি স্তনবৃন্ত থেকে রক্ত পড়লে

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বিশ্বব্যাপী ৫০৮,০০০ এর ও বেশী নারী ২০১১ সালে স্তন ক্যান্সারের কারণে মারা যান। সুতরাং, এ নিয়ে অবহেলার কোন সুযোগ নেই।

আমরা নারীরা বরাবরই নিজের স্বাস্থ্য সম্পর্কে উদাসীন। নিজের স্বাস্থ্য নিয়ে উদাসীনতার দিন শেষ। মায়া অ্যাপ ইন্সটল করে নিঃসঙ্কোচে সম্পূর্ণ পরিচয় গোপন রেখে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

Leave a Reply

Categories