গর্ভধারণ এ জটিলতা ও দীর্ঘদিন বাচ্চা না হওয়ার কারণসমূহ - মায়া

গর্ভধারণ এ জটিলতা ও দীর্ঘদিন বাচ্চা না হওয়ার কারণসমূহ

“গর্ভধারণ এ জটিলতা দেখা দিয়েছে, অনিয়মিত মাসিক , বিয়ে হয়েছে প্রায় ৪ বছরের বেশি, বাচ্চা নেওয়ার চেষ্টা করছি দীর্ঘদিন কিন্তু সফল হতে পারছি না।”

মায়ার প্লাটফর্মে আমরা এ জাতীয় অনেক প্রশ্ন পেয়ে থাকি। মায়ার ডাক্তার ডা.তাহমিনার এ বিষয়ে কিছু পরামর্শ জানতে পুরো লেখাটি পড়ুন।

গর্ভধারণ ও এ সংক্রান্ত কিছু মৌলিক ধারণা

সঙ্গীর সাথে যৌন সঙ্গমের সময় যখন ওভ্যুলেশন হয় তখন একজন নারী গর্ভধারণ করেন। কিছু সাধারণ চিহ্ন আছে যার মাধ্যমে আপনি বলতে পারবেন কখন আপনি ওভ্যুলেট করছেন।

যেমন- শরীরের তাপমাত্রা বৃদ্ধি, vaginal discharge এ পরিবর্তন লক্ষ্যনীয় (পাতলা সূতার মত পরিমানে বেশী ওভ্যুলেশনের সময়)।

প্রথমে আপনাকে যে কোন ধরনের জন্ম নিয়ন্ত্রণ যা আপনি ব্যবহার করছেন বন্ধ করতে হবে। এরপর কোন নারীর fertility সাথে সাথে ফেরত আসতে পারে।

আবার কারো ক্ষেত্রে fertility ফেরত আসতে বেশী সময় লাগতে পারে তিনি কি ধরনের জন্ম নিয়ন্ত্রণ ব্যাবহার করছেন তার উপর।

ওভ্যুলেশন সাধারণত ঘটে আপনার পরবর্তী পিরিয়ডের ১০-১৬ দিন আগে। আপনার পিরিয়ড যদি নিয়মিত থাকে, ওভ্যুলেশন ক্যালকুলেটরের মাধ্যমে সহজেই বলতে পারবেন কোন সময় আপনি সবচেয়ে fertile। প্রেগন্যান্ট হতে আগ্রহী হলে এই fertile সময়ে unprotected sex করা উচিত।

গর্ভধারণে জটিলতার সাধারণ কারণসমূহ

অনিয়মিত মাসিক

অনিয়মিত মাসিক গর্ভধারণের জটিলতার অন্যতম কারণ । বেশীরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায় Polycystic Ovarian Syndrome- এই জিনিসটা হয়। এছাড়া thyroid hormone সমস্যা থাকলে বা Prolectine হরমোন বেড়ে গেলে ovum maturation বা বড় না হতে পারে।

Endometriosis

Endometriosis  -এর কারণেও অনেক সময় বাচ্চা না হওয়ার ঘটনা ঘটতে পারে। আরেকটি বিষয় হলো- মানবদেহে যেসব প্রজননতন্ত্র আছে- জরায়ু, জরায়ুর দুই পাশে Fallopian tube  আছে।

যদি কারো Fallopian tube এ  সমস্যা থাকে বা বাধা থাকে সেক্ষেত্রেও স্বাভাবিক সন্তান ধারণে সমস্যা দেখা দেয়।

জরায়ু সমস্যা

জরায়ুতে অনেক সময় টিউমার হতে পারে। এর ফলে যদি কোনো সমস্যা হয় ভ্রুণটা যদি জরায়ুতে implantation করার সুযোগ না থাকে, বা জরায়ুর চামড়া যদি কোনো কারণে পাতলা হয়, তাহলে ভ্রুণ সেখানে implantation হবে না। তখন ওই নারী সন্তান ধারনে অক্ষম বলে বিবেচিত হবেন।

জরায়ু মুখ

  • ইনফেকশন
  • জরায়ুর মুখ যদি সংকীর্ণ হলে
  • যদি বীর্য কোনো কারণে জরায়ুর মধ্যে প্রবেশ করতে বাধা পায়

যোনিপথের সমস্যা

  • যোনী পথ যদি বাঁকা থাকে
  • যোনী পথে যদি কোন ধরনের পর্দা থাকে
  • যোনীপথের মুখে যদি কিছু থাকে তাহলে স্বামী স্ত্রী সহবাস করতে পারেন না
  • কোনো কারণে যদি স্পার্ম জরায়ুতে না ঢুকতে পারে

পুরুষের শারিরীক সমস্যা

নিম্নোক্ত কারণগুলোতে পুরুষরা গর্ভধারণে জটিলতার জন্য দায়ী হতে পারেন-

  • শুক্রানু না থাকলে
  • শুক্রানু যদি কম থাকে
  • যদি তাদের সহবাসে কোনো সমস্যা হয়
  • ছোট বেলায় কারো যদি mumps  হয়
  •  লিঙ্গ ও অন্ডকোষ বা তার আশপাশে যদি কোন অপারেশন হয়
  • সিফিলিস গনোরিয়া জাতীয় কোন যৌন রোগ হয়- সেক্ষেত্রে শুক্রানু নষ্ট হতে পারে
  • অনেক সময় ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার ফলে সন্তান জন্ম দেওয়ার ক্ষমতা হারাতে হয়
  • দীর্ঘদিন মদ্যপান বা ধূমপানের ফলেও শুক্রাণু নষ্ট বা কমে যেতে পারে
  • হরমোনাল সমস্যা বা জন্মগত কারণে টেস্টিস না থাকলে

এসমস্ত নানাবিধ কারণে গর্ভধারণে জটিলতা দেখা যায়। সমস্যা যা হোক পরীক্ষা নিরীক্ষা করিয়ে সঠিক কারণ নির্নয় করে চিকিৎসা নিতে হবে ।

আপনার গর্ভধারণে কোন জটিলতা থাকলে নির্দ্বিধায় মায়াতে প্রশ্ন করে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

Leave a Reply

Categories