আমের তৈরী ঘরোয়া ফেসপ্যাক ব্যবহারে পান স্বাস্থ্যজ্জ্বল ত্বক - মায়া

আমের তৈরী ঘরোয়া ফেসপ্যাক ব্যবহারে পান স্বাস্থ্যজ্জ্বল ত্বক

কখনও ভাবছেন যে আমকে কেন ‘ফলের রাজা’ বলা হয়? কারণ হল এর বহুমুখী ব্যবহার। এটি যেমন আপনার স্বাদের তৃপ্তি মেটায়, তেমনি আপনার ত্বকও এটি পছন্দ করে! আমের  শক্তিশালী উপাদান  আপনার ত্বকের যত্নে আশ্চর্যভাবে কাজ করতে পারে। আসুন দেখি এটি কীভাবে আপনার ত্বকেকে সহায়তা করে। আপনাকে যা করতে হবে তা হ’ল স্ক্রোল ডাউন । 

আমের ফেসপ্যাক: যেভাবে কাজ করে

আম আপনার ত্বকের জন্য অনেক দুর্দান্ত কাজ করে। বিষয়টি  নীচে বিস্তারিত আলোচনা করা হল:

  • আমের অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে ভরপুর যা আপনার ত্বকে অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি প্রভাব ফেলে আলট্রা ভায়োলেট রশ্মির প্রভাব কমাতে এবং ত্বকের এজিং কমাতে সহায়তা করে। 
  • আম ত্বকের কোলাজেনের ক্ষতিকে প্রতিরোধ করে। কোলাজেন এমন একটি প্রোটিন যা আপনার ত্বককে স্থিতিশীল রাখে এবং বার্ধক্যজনিত লক্ষণগুলি প্রতিরোধ করে।
  • এতে রয়েছে বিটা ক্যারোটিনের মত অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন সি এবং ভিটামিন ই যা ত্বককে গভীরভাবে পরিষ্কার করে। 
  • পলিফেনলের উপস্থিতির কারণে আমের নির্যাসগুলিতে ব্যথানাশক এবং অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি প্রভাব থাকে।
  • গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে যে আম আপনার ত্বকে বিভিন্ন ধরনের ব্যাকটিরিয়া, ছত্রাক এবং মাইক্রোবিয়াল আক্রমণ প্রতিরোধ করতে পারে। আমের এক্সট্রাক্টস (খোসা এবং বীজ) এর মধ্যে গ্যালেট, প্রানথোকায়ানিডিনস এবং গ্যালোটানিন থাকে যা ছত্রাকের সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করে ।
  • আরেকটি গবেষণায় দেখা গেছে যে আমের এক্সট্রাক্টস ব্যাকটিরিয়ার বৃদ্ধিকে বাধাগ্রস্থ করতে পারে যেমন স্ট্যাফিলোকক্কাস অ্যারিয়াস (ব্রণ সৃষ্টিকারী ব্যাকটিরিয়া), ব্যাসিলাস সেরিয়াস (খাদ্যে বিষক্রিয়া জনিত), সিউডোমোনাস অ্যারুগিনোসা (ডার্মাটাইটিস, হাড় এবং জয়েন্টের সংক্রমণ এবং মূত্রনালী এবং শ্বাসযন্ত্রের সিস্টেম) সংক্রমণ), এবং ই কোলাই E-Coli (খাদ্য বিষক্রিয়া  এবং শ্বাসজনিত সমস্যা কারণ)। 

তাহলে বুঝুন আমের কত গুণ। আসুন এবার জেনে নেই আমের তৈরী কিছু ঘরোয়া ফেসপ্যাক 

আম ও মুলতানি মাটির ফেসপ্যাক: উজ্জ্বল ত্বকের জন্য 

উপকরণ 

  • ১ টি পাকা আম 
  • ১ চা চামচ টক দই 
  • ৩ চা চামচ মুলতানি মাটি 

প্রস্তুত প্রণালী এবং ব্যবহার পদ্ধতি 

  • একটি আমের পাল্প ভালো ভাবে ব্লেন্ড করে নিন। 
  • আমের মিশ্রণের সাথে মুলতানি মাটি ও দই মিলিয়ে প্রয়োজনমত ঘনত্বের একটি প্যাক তৈরী করে নিন। 
  • মুখ পরিষ্কার করে প্যাকটি সারামুখে চোখের চারপাশ বাদ রেখে লাগিয়ে নিন। 
  • ২০ মিনিটের মত রেখে শুকিয়ে নিন। 
  • ভালো করে ধুয়ে ফেলুন। 

প্যাকটি যেভাবে কাজ করে 

আম ত্বককে নরম ও কোমল করে তোলে অন্যদিকে মুলতানি মাটি অতিরিক্ত ময়লা এবং তেল সরিয়ে দিয়, ত্বকের দাগ হ্রাস করে এবং আপনার ত্বককে উজ্জ্বল করে। এই আমের ফেসপ্যাকটি  গরম এবং শুষ্ক গ্রীষ্মের দিনগুলিতে বিশেষ উপকারী।

আম ও গোলাপজলের ফেসপ্যাক: সংবেদনশীল ত্বকের জন্য 

  • ১ টি পাকা আম
  • ২ চা চামচ মুলতানি মাটি 
  • ২ চা চামচ দই
  • ২ চা চামচ গোলাপ জল

প্রস্তুত প্রণালী এবং ব্যবহার পদ্ধতি 

  • একটি আমের পাল্প ভালো ভাবে ব্লেন্ড করে নিন। 
  • আমের মিশ্রণের সাথে মুলতানি মাটি, গোলাপ জল ও দই মিলিয়ে প্রয়োজনমত ঘনত্বের একটি প্যাক তৈরী করে নিন। 
  • মুখ পরিষ্কার করে প্যাকটি সারামুখে চোখের চারপাশ বাদ রেখে লাগিয়ে নিন। 
  • ১৫-২০ মিনিটের মত রেখে শুকিয়ে নিন। 
  • ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ভালো করে ধুয়ে ফেলুন।

প্যাকটি যেভাবে কাজ করে 

গোলাপজল রোদে পোড়া বা ত্বক জ্বালাপোড়া ভাব কমানোর জন্য দুর্দান্ত কাজ করে (যা গরম আবহাওয়ায় বেশ সাধারণ)। এই ফেস প্যাকটি আপনার ত্বককে হাইড্রেট করে এবং বার্ধক্যজনিত লক্ষণগুলি প্রতিরোধ করে। এটি সংবেদনশীল ত্বকের জন্য অত্যন্ত ভাল।

আম ও আটার ফেসপ্যাক: উজ্জ্বল ত্বকের জন্য 

উপকরণ 

  • ১ টেবিল চামচ পাকা আমের গুড়
  • ১ টেবিল চামচ গমের আটা
  • ১ চা চামচ মধু (আপনি দুধও ব্যবহার করতে পারেন)

প্রস্তুত প্রণালী এবং ব্যবহার পদ্ধতি 

  • সমস্ত উপকরণ ভাল করে মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট তৈরি করে নিন।
  • যদি খুব ঘন হয় তবে অল্প অল্প মধু / দুধ মিলিয়ে সামঞ্জস্য করুন।
  • হাতের আঙ্গুল দিয়ে আপনার মুখ, হাত, গলা,ঘাড় ইত্যাদি জায়গায় পেস্টটি লাগিয়ে বৃত্তাকারে ম্যাসাজ করুন। 
  • শুকিয়ে নিন।
  • ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলুন।

প্যাকটি যেভাবে কাজ করে 

গমের আটা আপনার ত্বকের পৃষ্ঠ থেকে মৃত কোষগুলি সরিয়ে দেয়, ত্বককে মসৃণ, নরম এবং উজ্জ্বল করে। আমের ও মধু অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে পরিপূর্ণ থাকায় ব্রণ হওয়ার সম্ভাবনা হ্রাস করে এবং প্রদাহ প্রতিরোধ করে।

সুতরাং, পরেরবার যখন আম খাবেন বা আম দিয়ে ডেজার্ট বানাবেন নিজের ত্বকের জন্য কিছুটা রেখে দিবেন। প্যাকগুলো ব্যবহার করে দেখুন এবং কমেন্ট করে আমাকে জানান কেমন কাজ হয়েছে।আরও নতুন নতুন রূপচর্চা বিষয়ক টিপস পেতে মায়া অ্যাপটি ইন্সটল করে প্রশ্ন করুন।   

Leave a Reply