কোভিড-১৯ প্রতিরোধে আপনার করণীয় এবং বর্জনীয় - মায়া

কোভিড-১৯ প্রতিরোধে আপনার করণীয় এবং বর্জনীয়

করণীয়: কোভিড-১৯ এ সচেতনতা এখন সবচেয়ে বেশি জরুরি। মায়ার একাধিক ডাক্তারের পরামর্শ হল যেহেতু এখনও এ রোগের কোন প্রতিষেধক আবিষ্কার হয়নি তাই আমাদের নিম্নোক্ত সতর্কতা গুলো অবশ্যই মেনে চলতে হবে-

  • সামাজিক দূরত্ব (৩ ফিট) বজায় রাখতে হবে।
  • জরুরি প্রয়োজন ছাড়া জনসমাগম পরিহার করতে হবে, বাহিরে বের হলে গনপরিবহণ এড়িয়ে চলতে হবে।
  • বাহিরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক পরিধান করতে হবে।
  • মানুষের সাথে করমর্দন, আলিঙ্গন বা এধরনের সংস্পর্শ বন্ধ রাখতে হবে।
  • বারবার সাবান বা স্যানিটাইজার ব্যবহার করে হাত ধুতে হবে।
  • হাত না ধুয়ে চোখ, মুখ, নাক স্পর্শ করা যাবে না।
  • অসুস্থ পশুপাখির সংস্পর্শে আসা যাবে না।
  • প্রচুর পানি পান করতে হবে এবং ভিটামিন সি যুক্ত ফলমূল, শাকসবজি বেশি খেতে হবে।
  • মাছ, মাংস ভালোভাবে সিদ্ধ করে রান্না করতে হবে।
  • হাঁচি কাশি দেয়ার পরে, রোগীর সেবা করার পরে, মলত্যাগের পরে, খাবার খাওয়ার আগে এবং রান্নার আগে ভালো করে হাত মুখ ধুয়ে নিতে হবে।
  • আপনার জ্বর, সর্দি, কাশি থাকলে সুস্থ ব্যক্তির সংস্পর্শ এড়িয়ে চলুন। যথাসম্ভব নিজেকে আলাদা রাখুন।
  • জ্বর, সর্দি ও শ্বাসকষ্টে আক্রান্ত ব্যক্তি থেকে দূরে থাকুন।
  • ঘরবাড়ির একাধিকবার স্পর্শ করা স্থান গুলো বার বার জীবাণুমুক্ত করুন।
  • নিরাপদ থাকতে ঘরে থাকুন।

বর্জনীয়: নিম্নোক্ত কাজগুলো আপনার স্বাস্থ্য ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে-

  • ধূমপান 
  • দেশীয় ভেষজ ঔষধ খাওয়া 
  • অনেকগুলো মাস্ক পরা 
  • ডাক্তারের পরামর্শ ব্যতীত কোন ঔষধ সেবন করা। 

যদি আপনার জ্বর, সর্দি, কাশি, শ্বাসকষ্ট ইত্যাদি উপসর্গ থাকে তবে মাস্ক পরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সরকার নির্দেশিত হাসপাতালে গিয়ে ডাক্তারের পরামর্শ নিন। এক্ষেত্রে অবশ্যই আপনার ভ্রমণ বৃত্তান্ত অথবা বিদেশ ফেরত কারও সংস্পর্শে আসার ইতিহাস থাকলে তা গোপন না করে ডাক্তারকে খুলে বলুন। সচেতন থাকুন, নিরাপদে থাকুন। কোভিড-১৯ মোকাবিলায় মায়া আপনার পাশে রয়েছে। 

Leave a Reply