ক্ষুধাহীনতার  চিকিৎসা যদি করা না হয়, তাহলে অবস্থার অনেক গুরুতর স্বাস্থ্য সমস্যা ( problems)দেখা দিবে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে অবস্থার মারাত্মক হতে পারে। দীর্ঘমেয়াদী ক্ষুধাহীনতা প্রায়ই অপুষ্টির ফলে, গুরুতর জটিলতা এবং স্বাস্থ্য সমস্যা হতে পারে। এগুলোর মধ্যে কিছু অবস্থার চিকিৎসা আছে, ভালো হওয়া সম্ভব, বাকি অবস্থাগুলো ভালো হওয়া সম্ভব নয়। 
ক্ষুধাহীনতার  সঙ্গে যুক্ত রয়েছে এমন কিছু স্বাস্থ্য সমস্যা হলো:
 
পেশী এবং হাড়ের সমস্যা
দুর্বলতা, ভঙ্গুর হাড় (অস্টিওপরোসিস-osteoporosis) এবং শিশু ও তরুণ প্রাপ্তবয়স্কদের শারীরিক গঠন নিয়ে  সমস্যা।
যৌন সমস্যা
অনুপস্থিত সময়কাল এবং নারীদের মধ্যে বন্ধ্যাত্ব, এবং পুরুষদের মধ্যে যৌন ড্রাইভ হারানো এবং ইরেক্টিল ডিসফাংসন(erectile dysfunction)
হার্ট ও রক্তনালীর সমস্যা
 অনিয়মিত হৃদস্পন্দন, নিম্ন রক্তচাপ, হার্ট ভাল্বের রোগ, হৃদযন্ত্র ক্রিয়া বন্ধ এবং পা, হাত বা মুখ ফুলে (শোথ-oedema) যাওয়া, ইত্যাদি হয়। 
মস্তিষ্ক ও স্নায়ুর সমস্যা
হৃদরোগের সাথে সাথে অজ্ঞান হয়ে যাওয়া এবং স্মৃতিশক্তি লোপ পায়।
 
অন্যান্য সমস্যা
কিডনি ক্ষতি হয়, যকৃতের ক্ষতি হয়, রক্তাল্পতা এবং রক্তে কম চিনি-লো ব্লাড সুগার (hypoglycaemia) হতে পারে। 
 
ক্ষুধাহীনতার সাথে সাথে অনেকে বুলিমিয়াতে আক্রান্ত হতে পারে। এছাড়া এর সাথে সাথে অন্যান্য কিছু মানসিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।  
গর্ভাবস্থা জটিলতা
আপনার ক্ষুধাহীনতা থাকলে  এবং আপনি গর্ভবতী হলে পুরো গর্ভাবস্থায় এবং প্রসবের পরে আপনি এবং আপনার শিশুকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে।
গর্ভাবস্থায় ক্ষুধাহীনতা যেমন সমস্যার ঝুঁকি বেড়ে যায় যেমন:

  • গর্ভস্রাব
  • জন্ম তাড়াতাড়ি দান (অকাল জন্ম)
  • কম ওজনের একটি শিশুর জন্ম।
  • সিজারিয়ান সেকশন জন্য প্রয়োজন

 
এছাড়াও আপনার পূর্বে ক্ষুধাহিনতা থাকলে গর্ভাবস্থায় অতিরিক্ত যত্ন এবং সমর্থন প্রয়োজন।
 
 
 

Leave a Reply