কিভাবে মাংস গ্রিল বা বার-বি-কিউ করলে ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস পাবে? - মায়া

কিভাবে মাংস গ্রিল বা বার-বি-কিউ করলে ক্যান্সারের ঝুঁকি হ্রাস পাবে?

গ্রিল বা বার-বি-কিউ শীতকালে সবার আমাদের সবারই খুব প্রিয়। যেকোন অনুষ্ঠান, উৎসব কিংবা বন্ধুদের আড্ডায় গ্রিল বা বার-বি-কিউ এর কোন জুড়ি নেই।

কিন্তু জানেন কি মাংস গ্রিল বা বার-বি-কিউ খাবার সাথে ক্যান্সারের ঝুঁকি জড়িয়ে আছে? গবেষণা কিন্তু তাই বলে যে, যারা এসব খাবার ঘন ঘন খায় তাদের ক্যান্সারের ঝুঁকি বেড়ে যায়।

কি চিন্তিত হয়ে পড়লেন ?

না, খুব ঘন ঘন বা প্রতিদিন এ জাতীয় খাবার না খেয়ে মাঝে মাঝে উৎসব আয়োজনে পরিমিত খেলে ক্ষতির সম্ভাবনা খুব কম।

গ্রিলিংয়ের অস্বাস্থ্যকর দিকগুলি হ্রাস বা বিচ্ছিন্ন করার বিভিন্ন উপায় রয়েছে যাতে আপনি বারবিকিউর চারপাশে আপনার উৎসব আয়োজন উপভোগ করতে পারেন।

এখানে ঝুঁকি হ্রাস করার জন্য সাত টি টিপস রয়েছে যা আপনি অনুশীলনে করলে স্বাস্থ্য ঝুঁকি হ্রাস পাবে-

গ্রিল বা বার-বি-কিউ করার ৭ টি টিপস

শাকসবজি যোগ করা

প্রচুর শাকসব্জি খাওয়ার ফলে গ্রিলিংয়ের ক্যান্সার ঝুঁকিকে হ্রাস করতে দেখা গেছে। স্তন ক্যান্সারের ঝুঁকির এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, যে মহিলারা সবচেয়ে বেশি ভাজা মাংস খেতেন তাদের ৭৪ শতাংশ বেশি ঝুঁকি ছিল তাদের তুলনায় যারা কম খান ।

উচ্চ-গ্রিলিং গ্রুপে, যে সব মহিলারা বেশি শাকসবজি খেয়েছেন তারা এই সংখ্যাটি ৪৭ শতাংশে নামিয়ে এনেছেন। তারা দিনে মাত্র দু’টি পরিবেশনে সবজি খেয়ে এই বিশাল সুবিধা অর্জন করেছিল।

প্রতিবার খাবারের একটি বিশাল অংশ সবজি খেয়ে আপনি আপনার ঝুঁকি আরও অনেকটা কমাতে পারবেন।

আপনার প্লেটের এক-তৃতীয়াংশ – শাকসব্জী রাখুন বাকিটা অন্য খাবার।

সঠিক তাপমাত্রায় রান্না করুন

গ্রিলিংয়ের মতো উচ্চ-তাপমাত্রার রান্নায় সরাসরি আগুনে মাংস দেওয়ার ফলে বেশ কয়েকটি অস্বাস্থ্যকর রাসায়নিক তৈরি হয়।

এর মধ্যে দুটি- হেটেরোসাইক্লিক অ্যামাইনস, বা এইচসিএ, এবং পলিসাইক্লিক অ্যারোমেটিক হাইড্রোকার্বন, বা পিএএইচএস – যা প্রাণীর মধ্যে ক্যান্সার সৃষ্টি করার জন্য পরিচিত এবং এটি মানুষের মধ্যেও ঝুঁকি বাড়ানোর আশঙ্কা তৈরি করে।

বেশি উত্তাপ এবং দীর্ঘক্ষণ মাংস রান্না করা হলে, আরও বেশি এইচসিএ এবং পিএএইচ গঠিত হয়।

কিন্তু সঠিক তাপমাত্রা ও উপায়ে রান্না নাটকীয়ভাবে এই রাসায়নিকগুলির গঠন ভেঙ্গে দেয়।

তাহলে আপনি কীভাবে রান্না করবেন এই তো?

  • প্রথমত মাংস আরও ঘন ঘন উল্টে পাল্টে দিন – ধরুন, আপনার বার্গার বা স্টেকের জন্য প্রতি ৩০ থেকে ৬০ সেকেন্ড পরপর।
  • দ্বিতীয়ত, ওভারকুকিং বন্ধ করুন। অনেকগুলো গবেষণায় এর সাথে ক্যান্সারের ঝুঁকি বৃদ্ধি পাওয়ার সম্ভাবনা দেখা গিয়েছে।
  • বেকিং বা মাইক্রোওয়েভ এ রান্না করলেও সময় কম লাগার কারণে রাসায়নিক জমার সম্ভাবনা কমে যায়।
  • মাংসের টুকরোগুলো ছোট ছোট করে কাটলেও রান্না করতে কম সময় লাগবে।
  • রান্নার সময় সরাসরি উত্তাপে মাংস না দিয়ে ফয়েলে মুড়িয়ে রান্না করলে রাসায়নিক সংক্রান্ত ঝুঁকি কমে যায়।

মাংসের বিকল্প ভাবুন

প্রক্রিয়াজাত মাংসের চেয়ে গ্রিল ফিশ, সীফুড, পোল্ট্রি বা উদ্ভিজ্জ খাবারগুলি মাংসের ভালো বিকল্প হতে পারে; কারণ বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা প্রক্রিয়াজাত মাংসকে একটি কার্সিনোজেন এবং রেড মিট বা মাংসকে সম্ভাব্য কার্সিনোজেন হিসাবে বিবেচনা করে।

যদিও এগুলো গ্রিল করার সময় এইচসিএ উৎপন্ন হয় তথাপি সাধারণত গরুর মাংস এবং মুরগির মতো দীর্ঘ সময় সীফুড রান্না করতে হবে না, তাই যৌগিক জমে থাকা হ্রাস পাবে।

মেরিনেট করুন ভালোভাবে

গবেষণা থেকে জানা যায় যে কমপক্ষে ৩০ মিনিটের জন্য মেরিনেট করা মাংস, হাঁস-মুরগি এবং মাছের উপর এইচসিএ গঠন হ্রাস করতে পারে।

এর কারণটি গবেষকদের কাছে সম্পূর্ণ পরিষ্কার নয়, তবে একটি সম্ভাবনা হ’ল আপনি যদি মাংস এবং আগুনের মধ্যে মূলত চিনি, মসলা এবং তেলের প্রলেপ দিয়ে একটি ঢালের মত বাধা দেন তবে মাংসের পরিবর্তে এটিই রান্না এবং তাপ পায় বেশি।

এটি আপনার মাংসকে আরও সুস্বাদুও করে তোলে।

ধোঁয়ার বিষয়ে সচেতনতা

বার-বি-কিউ এর ফলে সৃষ্ট ধোঁয়াও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। তাই, ধোঁয়ার বিষয়ে সতর্ক থাকুন।

পোড়া অংশ খাওয়া এড়িয়ে চলুন

মাংসের হাড়ের পোড়া মুচমুচে অংশগুলোতে রাসায়নিক জমে থাকার সম্ভাবনা সব চেয়ে বেশি। তাই এগুলো এবং আগের পোড়া তেলের ভাজা অংশ এগুলো এড়িয়ে চলুন।

গ্রিল করার আগে এর ফাঁকে ফাঁকে জমে থাকা পোড়া অংশগুলো ভালোভাবে পরিস্কার করে নিন।

নরম কাঠের পরিবর্তে শক্ত কাঠ ব্যবহার করুন

যেসব কাঠ খুব দ্রুত পুড়ে যায় বা দাহ্য বেশি তার তুলনায় যেসব কাঠ শক্ত বা কয়লা যা খুব ধীরে ধীরে পুড়ে সেগুলো ব্যবহার করা উত্তম।

গনগনে আগুনে মাংস পোড়ানো থেকে বিরত থাকুন

পলিসাইক্লিক অ্যারোমেটিক হাইড্রোকার্বনের সরাসরি সংস্পর্শ এড়ানোর জন্য চর্বি ছাড়া সলিড মাংস দিয়ে গ্রিল করুন।

চর্বিযুক্ত মাংস গ্রিল করলে চর্বি গলে সরাসরি তেলে পড়ে এবং আগুন ও ধোঁয়া উপরে উঠে মাংসের সংস্পর্শে চলে আসে।

তাই, গ্রিল করার সময় মাংস ছিদ্র করা থেকে বিরত থাকুন। মায়াতে প্রশ্ন করে সঠিক তথ্য জানুন।

রেফারেন্স

Egan, S. (2019, June 27). 10 Ways to Lower the Cancer Risk of Grilling. The New York Times. https://www.nytimes.com/2019/06/27/well/eat/10-ways-to-lower-the-cancer-risk-of-grilling.html

Leave a Reply

Categories